SSC & HSC CornerUncategorized

All Paragraph in One Format Technique for SSC / Dhakil Examinee

All Paragraph in one format for ssc/dakhil examines. Hope that, this application technique will help you specially before exam. So follow this for Paragraph writing sample.

All Paragraph in One Format Technique for SSC / Dhakil Students

In English examination we have to answer application in all examination like  SSC / Dhakil so for you we have write in this post so that by reading this post you will be very prepared. We hope that if you read this post, you will be able to answer application easily.

Technique No-1

*** যে কোন ধরনের Social problem  যেমন  Drug addiction / Road accident / Load shedding / Traffic jam / Flood problem /Water pollution / Air pollution /Environment pollution / Terrorism /Illiteracy/ Arsenic Problem / Acid throwing / Deforestation.

(Topic)  is a terrible and harmful problem. It is not only a common matter for our own country but also for the other countries too. (Topic) is destroying our social peace and happiness. Day by day it is going out of our control which is very alarming. Keeping this problem we can not imagine our peace and happy life. Though (Topic) is very tough to remove this totally from the society but we have to try at any cost. Without removing this acute problem people can not get relief. Everybody wants a good solution for this problem. Beside government should arrest them who are creating this kind of problem. (Topic) is possible to remove by creating public awareness. So we should be more active to get a better solution.

Technique No-2

*** যে কোন ধরনের Good Qualities যেমন Value of time / Discipline /Truthfulness/ Honesty/ Patriotism / Obedience 

(Topic) is the most valuable and powerful element of our success in life. It enriches self-confidence of our running life. If we want to reach of our aim we must attain such quality. It is need to have for mental faculty. (Topic) can bring out reward for human beings. Without (Topic) anybody can not achieve anything great and glorious. A man can lose his prestigious life for its absence. Most of the greatest persons have gained success by it. (Topic) broadens our outlook. Therefore we should have this quality at any cost.

Technique No-3

*** যে কোন ধরনের scientific things যেমন Computer / Internet / E-mail / Mobile phone.

We live in the age of science and technology. With the help of science and teachnology we have invented many wonderful things. (Topic) is one of them.It is the blessing of science for the world. Today we can enjoy various objectives of the world though (Topic). It brought the remotest places of the world on hand. It has some exceptional power. We should use this technology properly. We can widen our knowledge by it in different fields. (Topic) gives us a lot of oppurtinities and it mainly influence more on young generation. As every thing has its both negative and positive side so (Topic) has also two sides and we should use only positive sides which provide us useful knowledge.

l

Important Paragraph collection for Dhakil/SSC examine with Bangla Meaning

 

(1)Responsibility

Responsibility means a duty or an obligation to do something.For the necessity of life one has to perfrom a lot of duties and responsibilities. For example, one has the responsibility to take care of his parents in their old age, to attend madrasah and pursue his studies properly and so on. He has also responsibilities to his neighbour, to society and to the government. Again a responsibility means an obligation or a duty not to do something. He can not do any harmful act, crime or anything that causes inconvience to others. Our government has responsibilities to provide for its citizens the basic necessities of life, including food, clothing, shelter, education and medical care.The knowledge, skills and attitudes you have gained at home, at madrasah and in society will help you to be aware of your responsibilities and to carry them out effectively. To discharge duties with skills is good for oneselfs, for his family and friends, for his society and country as a whole.

দায়িত্বশীলতা হচ্ছে এক প্রকার কর্তব্য বা কাজ করার বাধ্যবাধকতা। জীবনের প্রয়োজনে একজনকে অনেক দায়িত্ব ও কর্তব্য পালন করতে হয়।উদাহরন স্বরুপ বলা যায়, একজনের আছে দায়িত্ব পিতামাতার বৃদ্ধ বয়সে তাদের সেবা করা, মাদরাসায় যাওয়া এবং লেখাপড়ায় সঠিকভাবে মনোনিবেশ  করা এবং আরো অনেক কিছুই। প্রতিবেশী,সমাজ ও সরকারের প্রতিও তার কর্তব্য রয়েছে। আবার,অনেক কিছু আছে যেগুলো না করাটাও দায়িত্বশীলতার পর্যায়ে পড়ে। সে কোন ক্ষতিকর কাজ করতে পারে না, অপরাধ বা এমন কোনকিছু যা অন্যের ক্ষতির কারণ হয় তা সে করতে পারেনা। নাগরিকদের জীবনের মৌলিক চাহিদা পূরণ যথা- অন্ন, বস্ত্র, বাসস্থান শিক্ষা ও চিকিৎসার ব্যবস্থা করা আমাদের দেশের সরকারের দায়িত্বের অন্তর্ভূক্ত। তোমরা তোমাদের বাড়িতে, মাদরাসায় এবং সমাজে যে জ্ঞান দক্ষতা ও দৃষ্টিভঙ্গি অর্জন করেছ সেগুলোই তোমাদেরকে নাগরিক দায়িত্ব পালনে সাহায্য করবে। কর্তব্য দক্ষতার সহিত পালন করা  তার নিজের জন্য, তার পরিবার পরিজন, বন্ধু-বান্ধবের জন্য এবং তার সমাজ রাষ্ট্রের মঙ্গলের জন্য উত্তম হবে।

(2) International mother language day

International mother language day, known as ‘Shaheed Dibas’, is a red letter day in our history. On this day, we pay tribute to the martyrs who laid down their lives to establish Bangla as a State Language in undivided Pakistan in 1952. The UNESCO declared 21st February as the international Mother Language Day showing respect to the martyrs of our language movement. Now the whole world observes the 21st February as International Mother Language Day. Hundreds of bare-footed people gather in front of the Shaheed Minar with flowers and garlands. The government, different organizations and institutions arrange programmes to celebrate the day. Newspapers publish special supplements on this day. It is our national holiday. School, college, university and offices remain closed on this day. Our national flag is kept hoisted half most on this day. Actually, the day possesses a great significance for the whole nation as well as the world.

আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস, যা ‘শহীদ দিবস’ নামে পরিচিত, আমাদের ইতিহাসে একটি স্মরণীয় দিন। এই দিনে আমরা সেই শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করি যারা ১৯৫২ সালে অবিভক্ত পাকিস্তানের রাষ্ট্রভাষা হিসেবে বাংলাকে প্রতিষ্ঠা করতে প্রাণ বিসর্জন দিয়েছিলেন।  ইউনেস্কো ২১ শে ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে ঘোষনা করেছিল আমাদের ভাষা আন্দোলনের শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে। এখন সমগ্র বিশ্ব ২১ শে ফেব্রুয়ারিকে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস হিসেবে পালন করে। শত শত মানুষ নগ্ন পায়ে ফুল ও ফুলের মালা নিয়ে সাথে শহীদ মিনারের সামনে জড়ো হয় । সরকার, বিভিন্ন সংগঠন এবং প্রতিষ্ঠানসমূহ দিনটি উদযাপন করার জন্য বিভিন্ন কর্মসূচী গ্রহণ করে। সংবাদপত্র এই দিনে বিশেষ সম্পূরক প্রকাশ করে। এটি আমাদের জাতীয় ছুটির দিন। এই দিনে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় ও অফিস বন্ধ থাকে। এই দিনে আমাদের জাতীয় পতাকা অর্ধেক রাখা হয়। প্রকৃতপক্ষে, সেই দিনটির রয়েছে একটি বিশেষ তাৎপর্য সমগ্র জাতি এবং বিশ্বের জন্য ।

(3) A Winter Morning

A winter morning is misty and cold. There is dense fog everywhere. Everything looks hazy. Things at a distance hardly be seen. The tall trees are covered with fog. Dew drops fall on leaves and blades of grass at night. They look like glittering pearls when the rays of the morning sun falls on it. Village children and people have hardly clothes. They gather straw and dry leaves to make fire to warm themselves. The old and the poor bask in the sun in order to warm themselves. People in general go and children get up late. In a winter morning one can enjoy delicious sweet, cakes, payes of date juice and many other things. The scene of the winter morning vanishes as the day advances. The sun goes up and the fog melts. A winter morning is enjoyable in many respects.

শীতের সকাল হয় কুয়াশাচ্ছন্ন এবং ঠান্ডা। সবখানেই ঘন কুয়াশা। সবকিছুই ঝাপসা দেখায়। নিকটের জিনিষ দেখতে কষ্ট হয়। লম্বা গাছগুলো কুয়াশায় ডেকে যায়। রাতে শিশির বিন্দু পাতা ও ঘাগের ডগায় পড়ে। এগুলোকে মুক্তোর দানার মত দেখায় যখন সূর্যের কিরণ এদের উপর পড়ে। গ্রামের শিশুরা এবং লোকজন ভালভাবে গরম কাপড় পরিধান করে। তারা একত্রিত হয়ে খড় ও  পাতা দিয়ে আগুন জ্বেলে উষ্ণতা নেয় । বৃদ্ধ এবং গরিব লোকজন উষ্ণতার জন্য সূর্যের রোদ পোহায় ।লোকজন সাধারণ দেরীতে বের হয় এবং শিশুরা দেরীতে শয্যা ভ্যাগ করে । শীতের সকালে একজন লোক রুচিকর মিষ্টি, পিঠা, পায়েশ, খেজুরের রস এবং অন্যান্য কিছুর স্বাদ গ্রহণ করতে পারে। শীতের সকাল দিনের সময়টা বাড়িয়ে দেয়। কুয়াশা কেটে সূর্য উঠে। অনেক কিছুর জন্য শীতের সকাল উপভোগ্য।

(4) Tree plantation

Trees are called the best friend of human being. Philosophers, poets and writers composed numerous writings describing the usefulness of the tree. We get shades, wood and other products from tree. Tree also helps us to prevent drought and floods. The most important thing that we get from tree is oxygen which helps us to exist in the word. The people of our country are not aware of the necessity of tree. They want to make quick profit by cutting and sellings trees.But they do not know about the effect of fewer trees. If there are less trees the soil will become hard and poor. Day by day the area will turn into a desert. If trees are cut down brutally the temperature will increase. Then the water level of the sea will increase and many low-lying area of the world will be flooded. Realizing the importance of trees scientists and environmentalists are warning world people to stop cutting tree. They suggest to plant trees everywhere especially on the bank of ponds and rivers and by the side of roads and embankments. Our government also has taken some pragmatic steps to plant trees. To encourage people in this respect “Tree Plantation Week” is being observed every year in our country.

গাছকে মানুষের সর্বোত্তম বন্ধু বলা হয়। দার্শনিক, কবি, ও সাহিত্যিকেরা গাছের উপকারিতা বর্ণনা করে অগনিত লেখনী রচনা করেছেন। আমরা গাছ থেকে ছায়া, কাঠ ও অন্যান্য দ্রব্য পাই । গাছ আমাদেরকে বন্যা ও খরা প্রতিরোধেও সহায়তা করে। সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ যেটি আমরা গাছ থেকে পাই তা হল অক্সিজেন যা আমাদেরকে পৃথিবীতে বেঁচে থাকতে সাহায্য করে। আমাদের দেশের জনগণ গাছের প্রয়োাজনীয়তা সম্বন্ধে সচেতন নয়। তারা গাছ কেটে দ্রæত লাভ/ মুনাফা পেতে চায়। কিন্তু গাছ কমে গেলে এর ফলাফল সম্বন্ধে তারা জানে না। যদি গাছ কমে যায় তবে মাটি শক্ত ও অনুর্বর হয়ে যাবে । দিনে দিনে ঐ এলাকা মরুভূমিতে পরিণত হবে। যদি নিষ্ঠুরভাবে গাছ কাটা হয় তবে তাপমাত্রা বৃদ্ধি পাবে। সমুদ্রের পানির উচ্চতা বৃদ্ধি পাবে এবং বিশ্বের অনেক নিচু এলাকা প্লাবিত হবে। গাছের গুরুত্ব অনুধাবন করে বিজ্ঞানীরা ও পরিবেশবাদীরা বিশ্ববাসীকে গাছ কাটা বন্ধের ব্যাপারে সর্তক করে আসছেন। তারা সব জায়গায় বিশেষ করে পুকুর ও নদীর পাড়েএবং রাস্তাঘাট ও বাঁধের পাশে গাছ লাগানোর উপদেশ দেন। আমাদের সরকারও গাছ লাগানোর ব্যাপারে কিছু বাস্তবিক পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এ ব্যাপারে লোকজনকে উৎসাহিত করার জন্য আমাদের দেশে প্রতি বছর “বৃক্ষরোপণ সপ্তাহ” উদযাপন করা হয়।

(5) Mobile Phone

Mobile Phone is one of the wonders of modern science. It has added a new dimension to our life and to communication system. Through mobile phone, we can send messages to distant places, play games and sports, know about time, solve the work of calculation and be aware of different kinds of news and views. At present the popularity of mobile phone is increasing day by day. In a very single moment we can communicate with the people living in a very distant place by using it. Besides of these advantages, the mobile phone has still some drawbacks. Though the price of it is decreasing, per minute bill is not decreasing in proportion that. Nowadays terrorists are using it to spread out terrorism all around the world. Scientists have recently discovered that mobile phone can cause cancer to the users. Again, using mobile phone is harmful to the children and pregnant women. But in spite of having all these disadvantages, finally it can be mentioned here that the necessity of a mobile phone in exchanging messages can not be denied in the true sense in our practical life.

মোবাইল ফোন আধুনিক বিজ্ঞানের চমৎকার বিস্ময়গুলোর মধ্যে অন্যতম। এটি আমাদের জীবনে ও যোগাযোগ ব্যবস্থায় একটি নতুন মাত্রার সংযোজন করেছে। মোবাইল ফোনের মাধ্যমে আমরা দূরবতী স্থানে বার্তা প্রেরণ করতে পারি, খেলাধুলা করতে পারি, সময় সম্পর্কে জানতে পারি, গণনার কাজ মীমাংসা করতে পারি এবং বিভিন্ন ধরনের সংবাদ ও মতামত সম্পর্কে সচেতন থাকতে পারি। বর্তমানে মোবাইল ফোনের জনপ্রিয়তা দিনে দিনে বৃদ্ধি পাচ্ছে। এটি ব্যবহার করে আমরা দূরবতী স্থানে বসবাসরত লোকজনের সাথে এক মুহুর্তে যোগাযোগ করতে পারি। এসকল সুবিধা ছাড়াও মোবাইল ফোনের কিছু অসুবিধা রয়েছে। যদিও এর মূল্য হ্রাস পাচ্ছে, সে অনুপাতে প্রতি মিনিটের বিল হ্রাস পাচ্ছে না। আজকাল সন্ত্রীরা বিশ্বজুড়ে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ছড়াতে এটি ব্যবহার করছে। স¤প্রতি বিজ্ঞানীরা উদঘাটন করেছেন যে, মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীদের ক্যান্সার হতে পারে। এছাড়া, শিশুদের এবং গর্ভবতী মহিলাদের জন্যে মোবাইল ফোন ব্যাবহার করা ক্ষতিকর। কিন্তু এ সকল অসুবিধা থাকা সত্তে¡ও পরিশেষে এখানে এটি উল্লেখ করা যায় যে, প্রকৃত অর্থে আমাদের ব্যবহারিক জীবনে সংবাদ বিনিময়ের ক্ষেত্রে মোবাইল ফোনের প্রয়োজনীয়তা অস্বীকার করা যাবে না।

(6) The Importance of English/Learning English

For its glogal utility, English is an international language. Statistics show that about 350 million people speak English as a first language and another 300 million use it as a second language. It is the official or semi-official language in more than 60 countries and of many international organizations. The International Olympic Committee, for example, always holds meetings in English. English helps the international community and the business world to communicate across national borders. Today more than 80% of all the information in the world’s computers is in English, so organizations frequently need employees who speak and write a standard form of English. In fact, some companies provide English language training for their staff. It is, therefore little wonder that job advertisements now a days often ask for a good working knowledge of English.  Many believe now that English usually helps them to get good jobs and better salaries.

ইংরেজী একটি আর্ন্তজাতিক ভাষা, বিশ্বব্যাপী এর ব্যাপকতার জন্য। পরিসংখ্যান দেখা যায় যে, প্রায় ৩৫০ মিলিয়ন মানুষ প্রথম ভাষা হিসেবে ইংরেজীতে কথা বলে এবং ৩০০ মিলিয়ন মানুষ এটাকে দ্বিতীয় ভাষা হিসাবে ব্যবহার করে। ৬০ টিরও বেশি দেশে এবং অনেক আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানে এটা সরকারি বা বেসরকারি ভাষা হিসেবে ব্যবহৃত হয়। উদাহরণস্বরূপ, আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটি সর্বদা ইংরেজিতে বৈঠক করে থাকে। ইংরেজী আন্তর্জাতিক স¤প্রদায় এবং ব্যবসায়িক বিশ্বকে জাতীয় সীমানা পেড়িয়ে যোগাযোগ করতে সহায়তা করে। আজ, বিশ্বের কম্পিউটারগুলির ৮০% এরও বেশি তথ্য ইংরেজিতে থাকে, তাই প্রতিষ্ঠানগুলি সাধারণত এমন কর্মচারীদের প্রয়োজন হয় যারা মানসম্মত ইংরেজি বলতে ও লিখতে পারে। বস্তুত কিছু কোম্পানি তাদের কর্মীদের জন্য ইংরেজি ভাষা প্রশিক্ষণ প্রদান করে। অতএব আজকাল এটা কোনো বিস্ময়ের ব্যাপার নয় যে, চাকরির বিজ্ঞাপনে প্রায়শই ইংরেজিতে ভালো কর্মদক্ষতা চাওয়া হয়। অনেকেই বিশ্বাস করে যে, ইংরেজি তাদের সাধারণত ভালো চাকরি ও বেতন পেতে সাহায্য করে।

(7) Mother Teresa

Mother Teresa was born in Yugoslavia on August 26, 1910. Her orginal name was Agnes Gonxha Bojaxhiu. She dedicated her whole life for the service of humanity. At the age of 12, she realised that what she wanted to do most of all, was to help the poor. She decided to train for missionary work and came to India at the age of 19 to join the Sisters of Loretto, an Irish community of nuns with a mission in Kolkata. In 1928 she began her journey to India. There she began teaching at a Calcutta girl’s school in 1931. She felt shocked at the sight of the sick and dying destitute on the streets of Calcutta. She founded ‘Nirmal Hriday’ in 1952 for their proper care and treatment. Mother Teresa’s work has been recognised throughout the world and she has received a number of awards, the most prestigious being the 1979 Nobel Peace Prize; in 1971 she received the Pope John XXIII peace prize; The Bharat Ratna and many more. The great soul left the world on 5 September, 1997.

১৯১০ সালের ২৬ আগস্ট মাদার তেরেসা যুগো¯øাভিয়ায় জন্মগ্রহণ করেন। । তাঁর প্রকৃত নাম ছিল অ্যাগনেস গোনাক্সা বোজাক্সিউ। তিনি মানবতার সেবা জন্য তার পুরো জীবন উৎসর্গ করেছিলেন। ১২ বছর বয়সে তিনি উপলব্ধি করলেন যে, তিনি যা করতে সবচেয়ে বেশি চান তা হলো গরিবদের সাহায্য করা।তিনি মিশনারি কাজে প্রশিক্ষণ গ্রহণ করতে সিদ্ধান্ত নিলেন এবং ১৯ বছর বয়সে কলকাতায় একটি মিশনে আসা আইরিশ স¤প্রদায়ের একটি সন্ন্যাসিনী দল সিস্টার অভ লরেটোতে যোগ দিতে ভারতে আসেন।১৯২৮ সালে তিনি ভারত সফর শুরু করেন। সেখানে তিনি কলকাতা কলেজের স্কুলে ১৯৩১ সালে শিক্ষকতা শুরু করেন। কলকাতার রাস্তায় অসুস্থ ও মৃতপ্রায় লোকদের অবস্থা দেখে মর্মাহত হতেন। তিনি তাদের যথাযথ যতœ এবং চিকিৎসার জন্য ১৯৫২ সালে ‘নির্মল হৃদয়’ প্রতিষ্ঠা করেন। মাদার তেরেসার কাজকে বিশ্বব্যাপী স্বীকৃতি দেওয়া হয়েছে এবং তিনি অনেক পুরস্কার গ্রহণ করেছেন, সবচেয়ে বেশি সম্মানজনক পুরস্কার হচ্ছে ১৯৭৯ সালের নোবেল শান্তি পুরস্কার; ১৯৭১ সালে পোপ জন। ২৩-এর শান্তি পুরস্কার গ্রহণ করেন এবং ভারতরতœসহ আরও অনেক পুরস্কার গ্রহণ করেন। এই মহান আত্মা ১৯৯৭ সালের ৫ সেপ্টেম্বর পৃথিবী ত্যাগ করেন।

 (8) Global Warming

Global warming is the rise in the average temperature of the earth atmosphere caused by due to incresing concentration of green house gases in the atmosphere of the earth. These green house gases are mostly produced as a result of human activity. Global warming has lately become a serious issue, which threatens to disrupt the basic balance of the environment and causes large scale destruction. Ecological systems are the very foundation of our society in science, agriculture, social and economic planning. Environmental balance is very impotent to survive. Green house gases produce the green house effect which traps hit near the earth’s surface maintaining a relative constant temperature. However many human activities increase the amount of greenhouse gases in the atmosphere. As concentrations increase, the temperature of the earth also rises. The potential impact of climate change on agriculture is also of a great concern. An authoritative international study of the impacts of global warming on food security concludes that as many as 63 to 369 million additional people could be at risk of hunger by 2060 if global warming is not controlled.

পৃথিবীর বায়ুমন্ডলে গ্রীণহাউজ গ্যাসের বৃদ্ধিপ্রাপ্ত সঞ্জয়ের ফলে পৃথিবীর তাপমাত্রার গড় বৃদ্ধি হলো বৈশ্বিক উষ্ণতা। এসব গ্রিনহাউজ গ্যাসের মাত্রা মানুষের কর্মকান্ডের কারণেই বৃদ্ধি পায়।  বৈশ্বিক উষ্ণতা সম্প্রতি অতি ভয়াবহ বিষয় হয়ে উঠেছে, কারণ এটি বিশ্ব পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট করে, বিশ্বে বিপুল ধ্বংস ঘটাতে পারে। আমাদের সমাজে বিজ্ঞান,কৃষি,সামাজিক, অর্থনৈতিক পরিকল্পনার ভিত্তি হচ্ছে বাস্তুজগৎ।জীবন ধারণের জন্য পরিবেশগত ভারসাম্য খুবই গুরুত্বপূর্ণ।গ্রিণহাউস গ্যাসের প্রভাবে পৃথিবীর তাপমাত্রা পৃথিবীর উপরিভাগে খুব নিকটেই আবদ্ধ হয়ে পৃথিবীর তাপমাত্রাকেও  অপরিবর্তনীয় রাখে। মানুষের অনেক কর্মকান্ডের ফলে পৃথিবীর তাপমাত্রা বৃদ্ধি পায়। যতই গ্রীণহাউজ গ্যাসের পুঞ্জীভবন বাড়ে ততই পৃথিবীর তাপমাত্রা বাড়ে। কৃষিক্ষেত্রে জলবায়ু পরিবর্তনের  সম্ভাব্য প্রভাব ব্যাপক উদ্বেগের কারণ। খাদ্য নিরাপত্তার উপর বৈশ্বিক উষ্ণায়নের প্রভাব সংক্রান্ত একটি আন্তর্জাতিক গবেষণায় দেখা যায়,  যদি বৈশ্বিক উষ্ণায়ন নিয়ন্ত্রণ করা না হয়, তবে ২০৬০ সালের মধ্যে আরো ৬৩ থেকে ৩৬৯ মিলিয়ন মানুষ দুর্ভিক্ষে পতিত হওয়ার আশংঙ্খা রয়েছে।

(9)   E-mail

Electronic mail is popularly known as ‘e-mail’. It is a wonderful invention of communication technology of our modern science. It has brought a dramatic change in mode of communication. E-mail is very helpful for the students. They require consulting many books. But all are not available in the libraries of their schools, colleges and universities. But e-mail offers them the opportunity to collect any information from any book. It is also very cheap and easy to use. Besides by using e-mail the users can save their time. If a person has a personal computer and a telephone connection, he can get e-mail connection. It also reduces the consumption of paper in the offices. So e-mail saves money and time. Through e-mail, messages can be transmitted from one country to another within seconds. It is far cheaper than telephone calls. So, nowadays trade and commerce has become greatly dependent on this speedy type of communication. But e-mail is not being widely used in our country. To cope with the modern world, the young generation of our country must have the knowledge of using e-mail

ইলেকট্রনিক মেইল জনপ্রিয়ভাবে ই-মেইল” নামে পরিচিত। এটি যোগাযোগ প্রযুক্তিতে এক বিস্ময়কর আবিষ্কার। এটি আধুনিক যোগাযোগ ব্যবস্থায় নাটকীয় পরিবর্তন এনেছে। ছাত্রছাত্রীদের জন্য ই-মেইল খুব সহায়ক। তারা অনেক বই যাচাই করতে চায়। কিন্তু সমস্ত বই তাদের স্কুল, কলেজ এবং বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর লাইব্রেরীতে সহজপ্রাপ্য নয়। তবে ই-মেইল তাদেরকে যেকোন বই থেকে তথ্য সংগ্রহ করার সুযোগ দেয়। এটির ব্যবহারও খুব সহজ এবং সস্তা। তাছাড়া, ই-মেইল ব্যবহারকারীরা তাদের সময় বাঁচাতে পারে। যদি একজন ব্যক্তির ব্যক্তিগত কম্পিউটার এবং একটি টেলিফোন সংযোগ থাকে, সে ই-মেইল সংযোগ পেতে পারে। এটি অফিসে কাগজের ব্যবহারও  হ্রাস করে। তাই ই-মেইল অর্থ এবং সময় বঁচায়। ই-মেইলের মাধ্যমে এক দেশ থেকে অন্য দেশে কয়েক সেকেন্ডের মধ্যেই সংবাদ প্রেরণ করা যেতে পারে। এটি টেলিফোন কল অপেক্ষা অনেক সস্তা। তাই আজকাল ব্যবসা-বাণিজ্য-এ দ্রæততম যোগাযোগের উপর ব্যাপকভাবে নির্ভরশীল হয়ে  পড়েছে। কিন্তু আমাদের দেশে বিস্তৃতভাবে ই-মেইল ব্যবহৃত হচ্ছে না। আধুনিক বিশ্বের সাথে তাল মেলাতে আমাদের দেশের যুব প্রজন্মের অবশ্যই ই- মেইলের জ্ঞান থাকতে হবে। ।

Dear if you want to know all other grammatical trams , subscribe our website BD CIRCULAR ZONE and if you want to know to us about All Paragraph in One Format Technique for SSC / Dhakil Examine, comment in the following comment box. We will try to answer your question. Stay with us will come to you a new post for you. Thank you very much.

Related Articles

DMCA.com Protection Status
Close